ইফতার রাজনীতি থমকে গেছে বিএনপির

khaleda zia
ফাইল ফটো

তুষার রায় ●
প্রতি বছরেই পবিত্র মাহে রমজানে একাধিক ইফতারের আয়োজন করে বিএনপি। কূটনীতিকদের সম্মানে, রাজনৈতিক নেতাদের সম্মানে করা হয় জাকজমকপূর্ণ ইফতার। এর বাইরে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ইফতারেও হাজির হয় বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াসহ সিনিয়র নেতারা। কিন্তু দলীয় প্রধানের অনুপুস্থিতে থমকে গেছে ইফতার রাজনীতি। নামকাওয়াস্তে কিছু ইফতারের আয়োজন করলেও তাতে সাড়া নেই নেতাকর্মীদের।

বিএনপির রেওয়াজ অনুযায়ী, প্রথম ইফতার আয়োজন করা হয়ে থাকে এতিম ও আলেমদের সম্মানে। এবারো তার ব্যতিক্রম হয়নি। এর বাইরে ঢাকায় নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকদের সম্মানে, পেশাজীবীদের সম্মানে, রাজনৈতিক নেতাদের সম্মানে ছাড়াও বিভিন্ন পেশাজীবিদের সম্মানে ইফতার আয়োজন করা হবে এবারও। কিন্তু এর কোনো কিছুতেই নেই আমেজ।

নেতাকর্মীরা বলছেন, বেগম জিয়ার পরিবর্তে যে বলিষ্ঠ নেতৃত্ব প্রয়োজন ছিল তা সে নেতৃত্ব না পাওয়ায় আমেজ হারিয়েছে আয়োজন। অন্যদিকে সিনিয়র নেতৃত্বের মধ্যে চলমান বিবাদে স্বাভাবিক রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডেও ক্রমান্বয়ে পিছিয়ে পড়ছে দলটি। এ প্রসঙ্গে নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্বেচ্ছাসেবক দলের এক নেতা ফাস্ট বিডিনিউজকে বলেন, ‘স্থায়ী কমিটির নেতাদের মধ্যেও এখন বিবাদ চরমে। যার কারণে দলের মধ্যে কেউ বেগম জিয়ার জায়গা নিতে পারছে না। এটিই দলের সবচেয়ে বড় সমস্যা হয়ে দাড়িয়েছে।’