চলে গেলেন এরশাদ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট:

জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ আর নেই। আজ রোববার (১৪ জুন) সকাল ৭টা ৪৫ মিনিটে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় গত ২৬ জুন থেকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন ছিলেন এইচএম এরশাদ। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৯ বছর।

১৯৩০ সালের ১ ফেব্রুয়ারি রংপুর জেলায় দিনহাটায় জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৫০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৫২ সালে তিনি পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে কমিশন লাভ করেন। ১৯৬০ – ১৯৬২ সালে তিনি চট্টগ্রাম ইষ্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টের কেন্দ্রে অ্যাডজুট্যান্ট হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ১৯৬৬ সালে তিনি কোয়েটার স্টাফ কলেজ থেকে স্টাফ কোর্স সম্পন্ন করেন। ১৯৬৮ সালে তিনি শিয়ালকোটে ৫৪ ব্রিগেডের মেজর ছিলেন। ১৯৬৯ সালে লেফটেন্যান্ট কর্নেল হিসেবে পদোন্নতি লাভের পর ১৯৬৯-১৯৭০ সালে ৩য় ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট-এর অধিনায়ক ও ১৯৭১ – ১৯৭২ সালে ৭ম ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট এর অধিনায়ক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

এরশাদ ১১ ডিসেম্বর ১৯৮৩ – ৬ ডিসেম্বর ১৯৯০ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি ছিলেন। সেনাপ্রধান থাকাকালীন ১৯৮৩ সালে তিনি বাংলাদেশের রাষ্ট্রক্ষমতা হাতে নেন। এরপর তিনি দেশে সামরিক শাসন জারী করেন। ১৯৮৬ সালে তিনি দেশে সাধারণ নির্বাচন দেন। নির্বাচনে তিনি নিজের প্রতিষ্ঠিত জাতীয় পার্টি থেকে অংশগ্রহণ করেন এবং জয়ী হয়ে ৫ বছরের জন্য দেশের রাষ্টপতির দায়িত্ব গ্রহন করেন। ১৯৯০ সালে দেশবাসীর প্রচন্ড বিক্ষোভের মুখে ক্ষমতা ছাড়তে বাধ্য হন এরশাদ।

ফাস্ট বিডিনিউজ২৪/কেএস