ভ্রাম্যমান আদালতে ৪ জনের জেল জরিমানা কালীগঞ্জে প্রায় ২ কোটি টাকার নকল বিড়ি ও ব্যান্ডরোল জব্দ

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ থেকে নকল বিড়ি উৎপাদন ও ব্যান্ডরোল রাখার অপরাধে ৪ জনকে জেল জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। শনিবার সকালে জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ কে এম নুর হোসেন নির্ঝর এ আদেশ দেন।
দন্ডিতরা হলো-দেবরাজপুর গ্রামের শাহজানের ছেলে আসলাম হোসেন, পারখিদ্দা গ্রামের ওমর আলীর স্ত্রী সুফিয়া খাতুন, একতারপুর গ্রামের মিলন বিশ্বাসের স্ত্রী স্বপ্না বিশ্বাস ও পারখিদ্দা গ্রামের ওসমান আলীর স্ত্রী রেনুকা বেগম।
আদালত সুত্রে জানা যায়, শনিবার সকালে গোপন সংবাদের ঝিনাইদহ র‌্যাবের একটি অভিযানিক দল কালীগঞ্জের ওই ৩ টি গ্রামে অভিযান চালায়। এসময় নকল বিড়ি তৈরীর কারখানার সন্ধান পাওয়া যায়। জব্দ করা হয় প্রায় ২ কোটি টাকার নকল বিড়ি ও ব্যান্ডরোল। আটক করা হয় মালিকসহ ৪ জনকে। পরে আদালত বসিয়ে আসলাম হোসেন ও সুফিয়া খাতুনকে ৬ মাস করে কারদন্ড প্রদাণ করা হয়। অন্য ২ জনকে ১৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। পরে জব্দকৃত নকল বিড়ি ও ব্যান্ডরোল পুড়িয়ে দেওয়া হয়।

জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ কে এম নুর হোসেন নির্ঝর জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে প্রায় ২ কোটি টাকার নকল বিড়ি ও ব্যান্ডরোল জব্দ করা হয়। পরে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে দুই জনকে ৬ মাসের কারাদন্ড ও অপর দুইজনকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।