রোজায় শসা কতটুকু উপকারী?

cucumber

সাকিফ জায়েদ:

গরমে শসা একটি অতি উপকারী খাদ্য। সেই সাথে রোজা রাখার পর এই সবজিটি মানবদেহের জন্য হয়ে ওঠে আরো বেশি প্রয়োজনীয়। শসার রয়েছে অদ্ভুত কিছু গুন। জেনে নিন শসা খেলে কী কী উপকার আপনি পাবেন-

১। গরমে শরীরে পানির ঘাটতি দেখা দিতে পারে। শসা এই পানিশূণ্যতা দূর করে। তাই রোজা রাখার পর শসা খেলে সারাদিনের পানির ঘাটতিটুকু পূরণ হয়ে যাবে।

২। শসা ক্যাফেইনের বিকল্প হিসেবে কাজ করতে পারে। তাই শরীর এলিয়ে আসলে শসা খেতে পারেন। তাতে বেশ সতেজ অনুভব হবে আপনার।

৩। শসার প্রাকৃতিক ভিটামিন ও মিনারেল উপাদান এগুলোর অভাব থেকে আপনার শরীরকে বাঁচাবে।

৪। শসায় থাকে পটাশিয়াম। যা আপনার রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে।

৫। শসায় পানির পরিমাণ শতকরা ৯৫ ভাগ। এটি আপনার শরীরের ভেতরকার আদ্রতা ধরে রাখে এবং শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে শরীরকে ঠান্ডা রাখতে সহায়তা করে।

৬। ভিটামিন সি, ভিটামিন কে, ফসফরাস, ম্যাঙ্গানিজ,  প্যানটোথেনিক এসিড, ম্যাগনেশিয়াম ও ভিটামিন এ থাকে। এতে সোডিয়াম, কোলেস্টেরল ও স্যাচুরেটেড ফ্যাট খুব কম থাকে। তাই এটি রক্তে কোলেস্টেরলের পরিমাণ কম রাখতে সহায়তা করে।

৭। শসা দেহের ভেতর ও বাইরের তাপ শোষন করে শরীরের তাপমাত্রা সহনীয় পর্যায়ে রাখতে সহায়তা করে।

৮। শসা রক্তের ক্ষতিকর ও দূষিত উপাদানগুলোকে অপসারণ করে রক্তকে পরিশুদ্ধ রাখতে সহায়তা করে।

৯। এটি মূত্রের পরিমাণ বৃদ্ধি করে। ফলে শরীর থেকে বর্জ্য পদার্থগুলো বের হয়ে যেতে পারে।

১০। শসা পরিপাকতন্ত্রের এসিডিটিকে প্রশমিত করে। এছাড়াও বুক জ্বালা-পোড়া থেকে মুক্তি দিতে পারে শসা।

ফাস্ট বিডিনিউজ২৪/কেএস