• আজ সোমবার, ১৯শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং ; ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ ; ১০ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী
  • ‘শার্শাকে একটি মডেল থানায় রূপান্তর করতে চাই’

    ফাস্ট বিডিনিউজ ২৪ ●

    hasan jahir1

    যশোর-১ (শার্শা) আসনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে নির্বাচনী সম্ভাব্য প্রার্থীরা ইতোমধ্যেই নড়ে-চড়ে বসতে শুরু করেছেন। দেশের সীমান্তবর্তী যশোর-১ আসনে বিএনপির মনোনয়ন পেতে জোর প্রচারণা চালাচ্ছেন শার্শা উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও শার্শা সদর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবুল হাসান জহির। নির্বাচনী প্রস্তুতিসহ নানা বিষয়ে কথা বলেছেন ফাস্ট বিডিনিউজ ২৪-এর সাথে। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন ওয়ালী উল্লাহ খান। উপস্থিত ছিলেন পত্রিকার উপদেষ্টা সম্পাদক এস,এ,খান কচি।

    ফাস্ট বিডিনিউজ ২৪ ● আপনি তো মূলত ছাত্র রাজনীতি থেকে উঠে এসেছেন, তো এই রাজনীতিতে আসার শুরুটা কীভাবে?

    আবুল হাসান জহির ● জিয়াউর রহমান সাহেব যখন বাংলাদেশের রাজনীতির হাল ধরেছিলেন তখন আমি তার নীতি আদর্শের ভক্ত হয়েই রাজনীতিতে প্রবেশ করি। তিনি দেশব্যাপী যে উন্নয়নমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করেছিলেন তার এই কাজে উদ্বুদ্ধ হয়েই আমার এই ছাত্র রাজনীতিতে আসা।

    ফাস্ট বিডিনিউজ ২৪ ● আপনার পলিটিক্স এর ধারাক্রমটা যদি বলেন।

    আবুল হাসান জহির ● আমি ১৯৮০ তে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল নাভারণ ডিগ্রী কলেজের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করি। এবং ১৯৮১ সালে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল শার্শা উপজেলা শাখার সভাপতি নির্বাচিত হই। এরপরে আমরা চড়াই উৎরাই এর মধ্য দিয়ে ৯ বছর পার করি। তারপর অভ্যুত্থানে এরশাদের পতন হলো। তারপর আমরা নির্বাচন হলো, নির্বাচনে বিএনপি ক্ষমতায় আসলো। ১৯৯২ সালে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন হলে দলের থেকে আমি প্রার্থী হলাম এবং জয়লাভ করলাম। ১৯৯২ সালে আমি সর্বপ্রথম চেয়ারম্যান হলাম। তারপর যখন বিএনপির কাউন্সিল হলো তখন আমি থানা বিএনপির গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বানানো হলো। ১৯৯৭ সালে অনেক চাপের মধ্যে থেকেও আমি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলাম। তারপর আওয়ামী লীগ থেকে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা হত্যা মামলা দেওয়া হয়েছিল। পরে মামলাগুলো নিষ্পত্তি হয়ে গেছে।

    hasan jahir2

    ফাস্ট বিডিনিউজ ২৪ ● আপনি কি ইলেকশন করার জন্য দলের থেকে গ্রীন সিগন্যাল পেয়েছেন ?

    আবুল হাসান জহির ●না, দলীয় সিদ্ধান্তের তো কোনো কারণই নেই। এটা কাউকেই দেয়নি। তবে আমরা মাঠে আছি, কাজ করি দলের জন্য।

    ফাস্ট বিডিনিউজ ২৪ ● রাজনৈতিক সমীকরণে যদি আপনি মনোনয়ন না পান, তাহলে কি স্বতন্ত্র নির্বাচন করবেন?

    আবুল হাসান জহির ●না, দলীয় হাইকমান্ড যে সিদ্ধন্ত নেবে সেটাই চূড়ান্ত। স্বতন্ত্র নির্বাচনের প্রশ্নই আসে না। তখন বিএনপি হাইকমান্ড যে সিদ্ধন্ত নেবে সেটার সাথে একমত।

    ফাস্ট বিডিনিউজ ২৪ ● নির্বাচিত হলে কী কী কাজ করতে চান?

    আবুল হাসান জহির ● আল্লাহ যদি নির্বাচন করায় এবং আমি নির্বাচিত হই  তাহলে প্রথমত শার্শার মানুষের সুবিধা আসুবিধার দিকে নজর রাখব।  সেখানে বিভিন্ন সেক্টর আছে, যেমন- আইন শৃঙ্খলা ঠিক করব। এছাড়া একটি মাদক মুক্ত সমাজ গড়ে তুলতে চাই। শার্শা থানাকে একটি মডেল থানায় রূপান্তর করতে চাই।

    Close