• আজ সোমবার, ২৮শে মে, ২০১৮ ইং ; ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ ; ১২ই রমজান, ১৪৩৯ হিজরী
  • যে ৬ ধরনের মানুষের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন না করাই ভালো!

    ফাস্ট বিডিনিউজ ২৪ ●

    quarrel sad couple

    আমাদের চারপাশে প্রতিনিয়ত আমরা সুখী জুটিদের দেখি। তাদের দেখলেই মনের ভেতর শান্তির এক ঝলক বাতাস বয়ে যায়। মনে হয়, এ পৃথিবী হয়তো তাদের মধুর সম্পর্কের বদৌলতেই এতোটা শুভ্র। কিন্তু এটা আমাদের সকলের জেনে রাখা উচিৎ যে কোন সম্পর্ক আপনাআপনিই সুস্থ ও সুন্দর হয়ে যায়না। একে বাঁচিয়ে রাখতে হলে ছোট ছোট অনেক ব্যাপারের দিকে খেয়াল রাখতে হয়। সেগুলোর মধ্যে একটি হলো ‘বিশ্বস্ততা’। ভালো সম্পর্কে অবস্থান করার জন্যে নিজের সঙ্গীকে বিশ্বাস করা খুব বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

    কিছু কিছু খারাপ ব্যাপার আছে, যেগুলো একটি সম্পর্ককে নিমিষেই ধ্বংস করে দিতে পারে। এগুলো আমাদের প্রত্যেকের এড়িয়ে চলা উচিৎ। এমন ত্রুটিপূর্ণ সম্পর্কে অবস্থান করে সময় নষ্ট করার কোন মানেই হয়না।

    আজকের ফিচারে আপনাদের জানানো হবে কোন কোন বৈশিষ্ট্যের মানুষের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন থেকে আপনার দূরে থাকা উচিৎ। কারণ, সেটি মূল্যবান সময়ের অপচয় ছাড়া আর কিছুই নয়!

    নারসিসিস্ট বা আত্মপ্রেমী

    এমন মানুষ কখনো একজনের ভালোবাসা দিয়ে তৃপ্ত নয়। এ ধরনের মানুষগুলো সকলের সময় ও মন নিয়ে খেলতে ভালোবাসেন। এভাবেই তারা নিজেদের তৃপ্তির খোরাক যোগান। নারসিসিস্ট মানুষেরা প্রতিনিয়ত যোগ্য সঙ্গী খোঁজার তালে থাকেন। তারা এটাও মনে করেন যে তাদের বর্তমান সম্পর্ক খুব বেশিদিন টিকবে না এবং সেজন্য আশেপাশের বাকি সবাইকে দোষারোপ করেন।

    অতিরিক্ত কল্পনাবিলাসী

    একজন কল্পনাবিলাসী মানুষের জন্য উত্তেজনাপূর্ণ এবং নতুন সম্পর্ক তৈরি করা খুব গুরুত্বপূর্ণ। এ ধরনের মানুষেরা নতুন নতুন অনুভূতি খুব ভালোবাসেন এবং রুটিনমাফিক চলতে খুব বিরক্তবোধ করেন। যেকোন সীমাবদ্ধতা এবং ওয়াদা তাদের দু’চোখের বিষ এবং তারা সবকিছু উর্ধ্বে স্বাধীনতা রাখেন।

    আত্মবিশ্বাসহীন

    আমরা প্রত্যেকেই কোন না কোন ক্ষেত্রে আত্মবিশ্বাসহীনতায় ভুগি। যাহোক, কোন মানুষ যদি তার জীবন পরিপূর্ণভাবে অতিবাহিত না-ই করতে পারেন এবং প্রতিনিয়ত অন্যের ইশারায় চলতে হয়, সেটি কিন্তু খুব বিপজ্জনক লক্ষণ। এ ধরনের মানুষেরা ঘন ঘন অন্যের সহানুভূতি এবং সহায়তার আশায় থাকেন।

    প্রচণ্ড স্বার্থপর

    স্বার্থপর মানুষেরা নিজের চিন্তায় এতো মগ্ন থাকেন যে আশেপাশের মানুষেরাও যে কষ্টে থাকতে পারে, সেদিকে তাদের কোন ভ্রূক্ষেপ নেই। মাঝেমধ্যে তারা মনে করেন অন্য মানুষের যন্ত্রণার জন্যে তারাই দায়ী। তারা আরো মনে করেন যে সামাজিক রীতি-নীতি তাদের জন্যে নয়।

    কষ্ট সহ্যকারী

    একজন কষ্ট সহ্যকারী সর্বদা শহীদের মতন ভূমিকা পালন করেন। ছোটখাটো যেকোন ব্যাপার তাদের খুব পীড়া দেয়। তারা এমন কাউকে খোঁজেন যিনি তাদের কথাগুলো শুনে একটু আরামবোধ করাতে পারবেন। যখন তারা সঙ্গীর কাছ থেকে আশানুরুপ ব্যবহার পান না, তখন অন্য কোথাও স্বাচ্ছন্দ্যের খোঁজ করেন।

    সমালোচক

    সমালোচক ব্যক্তিরাও যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী নন। এজন্যে তারা প্রতিনিয়ত অন্যের ছিদ্র অন্বেষণে মগ্ন থাকেন। তারা কারো ক্ষতি করতেও কুণ্ঠাবোধ করেন না এবং এ সকল মানুষের দ্বারা সুস্থ সম্পর্কের আশা করা সম্পূর্ণ বোকামি।

    ফাস্ট বিডিনিউজ ২৪/এ আই

    Close