• আজ বৃহস্পতিবার, ১৯শে জুলাই, ২০১৮ ইং ; ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ ; ৫ই জ্বিলকদ, ১৪৩৯ হিজরী
  • নন এমপিও শিক্ষকরা ঘুরে দাঁড়াচ্ছে

    আন্দোলনের টানা চতুর্থদিনে নন এমপিও শিক্ষকরা তাদের যৌক্তিক দাবি আদায়ে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে। এর ফলে এই আন্দোলনের শিক্ষকরা ঘুরে দাঁড়ালো বলেই প্রতীয়মান হয়।

    বাজেটে নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিও খাতে সুনির্দৃষ্ট অর্থ বরাদ্দ না থাকায় দীর্ঘদিন আন্দোলনরত স্বীকৃতিপ্রাপ্ত নন এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারি ফেডারেশনের নেতারা দাবি পূরণে অনিশ্চয়তার মুখে পড়ে। এমতাবস্থায় কেন্দ্রীয় নেতারা ১০ জুন থেকে লাগাতার আন্দোলনের ডাক দেয়। তারই পরিপ্রক্ষিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থার গ্রহণের জন্য ১০ জুন ভোর বেলায় দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আগত শিক্ষকরা প্রেসক্লাবের সামনে জমায়েত হতে থাকে। পুলিশী বাধার মুখে প্রেসক্লাবের সম্মুখে অবস্থান করতে না পারলেও রাস্তার বিপরীত দিকে অবস্থান নিয়ে প্রেসক্লাবের সামনে বসার জন্য দফায় দফায় চেষ্টা করতে থাকে। পুলিশী বাধার কারণে তা সম্ভব না হলেও আন্দোলনের চতুর্থদিন সকাল ১১.০০ টার দিকে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি-সম্পাদকের নেতৃত্বে শিক্ষকরা প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান গ্রহণ করে।

    এসময় শিক্ষকরা ‘ জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু, ‘ প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতী বাস্তবায়ন কর করতে হবে, ‘ শেখ হাসিনার সরকার বারবার দরকার’ ‘ এমপিও না নিয়ে ঘরে ফিরে যাবো না,। ইত্যাদি শ্লোগান দিতে থাকে।

    এসময় পুলিশ দুইজন শিক্ষককে গ্রেফতার করে কিছুক্ষণ পর ছেড়ে দেয়।

    উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ২৬ ডিসেম্বর নন এমপিএ শিক্ষকদের লাগাতার অবস্থান ও পরবর্তীতে আমরণ অনশন কর্মসূচী চলার এক পর্যায়ে ০৫ জানুয়ারি ২০১৮ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব মোঃ সাজ্জাদুল হাসান শিক্ষাসচিব সোহরাব হোসেনকে নিয়ে অনশনরত শিক্ষকদের মধ্যে উপস্থিত হয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে সকল নন এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভূক্তির দাবি মেনে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে অনশনরত শিক্ষকদের অনশন ভঙ্গ করান। কিন্তু আসন্ন বাজেটে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে কোনো উদ্যোগ গ্রহণ না করায় আবার অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়।

    Close