• আজ সোমবার, ২৮শে মে, ২০১৮ ইং ; ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ ; ১২ই রমজান, ১৪৩৯ হিজরী
  • আবারও সোসিয়েদাদের মাঠে মেসি-নেইমারের হোঁচট

     ফাস্ট বিডিনিউজ ২৪  ●barsa-messi-2

    লিওনেল মেসির জাদু, নেইমারের ক্ষিপ্রতা, লুইস সুয়ারেসের দুর্দান্ত ফিনিশিং- প্রথমার্ধে কিছুরই দেখা মিলল না। দ্বিতীয়ার্ধের কিছু সময় বাদে বিশ্বের সেরা আক্রমণভাগ থাকল নিজেদের ছায়া হয়ে। ফলে আবারও রিয়াল সোসিয়েদাদের মাঠ থেকে জিততে না পারার হতাশা নিয়ে মাঠ ছেড়েছে বার্সেলোনা।অন্যদিকে, ধারণার বিপরীতে প্রায় পুরোটা সময় বার্সেলোনার রক্ষণে চাপ ধরে রাখল রিয়াল সোসিয়েদাদ। প্রথমে এগিয়েও গিয়েছিল তারা; তবে শেষ পর্যন্ত মেসির নৈপুণ্যে অন্তত এক পয়েন্ট পাওয়ার স্বস্তিতে মাঠ ছাড়ে লা লিগার গতবারের চ্যাম্পিয়নরা।

    রোববার রাতে সোসিয়েদাদের মাঠে ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়েছে। উইলিয়ান জোসের গোলে বার্সেলোনা পিছিয়ে পড়ার পর দ্রুতই দলকে সমতায় ফেরান মেসি।

    এই নিয়ে সোসিয়েদাদের মাঠে টানা আট ম্যাচ জয়শূন্য থাকল বার্সেলোনা। এবারের লিগে এটা তাদের টানা দ্বিতীয় ড্র। গত সপ্তাহে তারা ঘরের মাঠে মালাগার সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছিল।

    সোসিয়েদাদের মাঠে গত ৯ বছরে সাতবারের প্রচেষ্টায় একবারও জিততে না পারার হতাশা কাটানোর লক্ষ্যে রোববার রাতে খেলতে নামে বার্সেলোনা। কিন্তু শুরুটা ছিল তাদের জন্য বড়ই হতাশার।

    প্রথমার্ধের প্রায় পুরোটা সময় জেরার্দ পিকে ও হাভিয়ের মাসচেরানোর ব্যস্ত থাকতে হয় নিজেদের ঘর সামলাতে। প্রথম ১০ মিনিটে তিনটি কর্নার আদায় করে নেয় স্বাগতিকরা।

    রক্ষণের দুর্বলতাও কোচ এনরিকের ভাবনার কারণ হয়ে ওঠে; পঞ্চম মিনিটে পিকে-মাসচেরানোর ভুলেই প্রথম কর্নারটি পায় সোসিয়েদাদ। তিন মিনিটের ব্যবধানে দলটি দারুণ দুটি সুযোগ পেলেও সাফল্য পায়নি। পঞ্চদশ মিনিটে সুবিধাজনক অবস্থায় বল পেয়েও দুর্বল হেড করেন চাবি প্রিয়েতো। দ্বিতীয়বার ফাঁকায় বল পেয়েও লক্ষ্যভ্রষ্ট হেড করেন এই স্প্যানিশ মিডফিল্ডার।

    ৪১তম মিনিটে প্রথমবারের মতো কিছুটা গোছানো আক্রমণ চালায় বার্সেলোনা। বিরতির আগে দুটি কর্নারও আদায় করে নেয় তারা। কিন্তু স্কোরলাইনে কোনো পরিবর্তন আসেনি।

    ছন্দে ফেরার আভাস দেওয়া বার্সেলোনা দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে এগিয়ে যেতে পারতো। তবে নেইমারের বুলেট গতির বাঁকানো ফ্রি-কিক ঝাঁপিয়ে পড়ে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান গোলরক্ষক জেরোনিমো রুলি।

    ৫৩তম মিনিটে বার্সেলোনার রক্ষণের দুর্বলতায় এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ কাজে লাগায় সোসিয়েদাদ। শুরু থেকে অনুজ্জ্বল মাসচেরানোকে ফাঁকি দিয়ে কার্লোস ভেলার শট গোলরক্ষক ঠেকিয়ে দিলেও বিপদমুক্ত করতে পারেননি। উঁচু হওয়া বলে জোরালো হেড করেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড উইলিয়াম জোসে, গোললাইনে দাঁড়ানো পিকের পায়ে লেগে বল জালে ঢুকে যায়।এরপরই মেসি-নেইমারের দুর্দান্ত জুটির দেখা মেলে। দারুণ এক পাল্টা আক্রমণে ৫৯তম মিনিটে সমতায় ফেরে বার্সেলোনা। বাঁ-দিক থেকে নেইমারের কোনাকুনি পাস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ঠান্ডা মাথায় লিগে নিজের নবম গোলটি করেন পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার।

    ৭৭তম মিনিটে ২০ গজ দূর থেকে মেক্সিকোর ফরোয়ার্ড ভেলার শট ক্রসবারে লাগলে বেঁচে যায় বার্সেলোনা। বার্সোলোনার বদলি খেলোয়াড় দেনিস সুয়ারেসের ৮১তম মিনিটে দুরূহ কোণ থেকে নেওয়া শট গোলরক্ষককে পরাস্ত করলেও গোললাইনে প্রতিহত হয়।

    এর দুই মিনিট পর সোসিয়েদাদের সামনে আবারও দুর্ভাগ্য বাঁধ সাধে। ভেলার নীচু শট বাঁ পোস্টে লাগে। জার্মান গোলরক্ষক মার্ক আন্ড্রে টের স্টেগান ঠাই দাঁড়িয়েছিলেন।

    বাকি সময়েও দুটি ভালো সুযোগ পায় সোসিয়েদাদ; কিন্তু পুরো তিন পয়েন্ট নিশ্চিত করা গোলের দেখা আর মেলেনি। এই ড্রয়ের পর ২৭ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে বার্সেলোনা। সমান পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে সেভিয়া। শীর্ষে থাকা রিয়াল মাদ্রিদের পয়েন্ট ৩৩।

    দিনের অন্য ম্যাচে ওসাসুনাকে ৩-০ গোলে হারানো আতলেতিকো মাদ্রিদ ২৪ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে আছে।

    ২৩ পয়েন্ট নিয়ে সোসিয়েদাদ পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছে। এক ধাপ নিচে নেমে যাওয়া ভিয়ারিয়ালের পয়েন্ট ২২।

     

    ফাস্ট বিডিনিউজ২৪/কে এস

    Close