• আজ রবিবার, ২২শে জুলাই, ২০১৮ ইং ; ৭ই শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ ; ৮ই জ্বিলকদ, ১৪৩৯ হিজরী
  • ৯৯ টি টেস্ট খেলে যা যা অর্জন বাংলাদেশের

    ফাস্ট বিডিনিউজ ২৪ ●

    Bd First Test cricket

    প্রথম টেস্ট জয়ের পর উল্লসিত বাংলাদেশ ক্রিকেট দল

    বাংলাদেশ ক্রিকেট দল আগামীকাল বুধবার শ্রীলঙ্কার কলম্বোতে শততম টেস্ট ম্যাচটি খেলতে মাঠে নামবে। ঐতিহাসিক এই ম্যাচটির আগে একটু পেছনে ফিরে তাকানো যাক।

    ভারতের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট

    ২০০০ সালের জুন মাসে টেস্ট খেলার মর্যাদা পাওয়ার পর ওই বছরের ১০ই নভেম্বর বাংলাদেশ সাদা পোশাকের ক্রিকেট অর্থাৎ টেস্ট ম্যাচ খেলতে ঢাকার বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে প্রথমবারের মতো মাঠে নেমেছিল। প্রতিপক্ষ ছিল ভারত।

    প্রথম টেস্টে বাংলাদেশের শুরুটা ছিল দুর্দান্ত। ওই টেস্টে দলের অধিনায়ক ছিলেন নাইমুর রহমান দূর্জয় আর ভারতের অধিনায়ক ছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলি। টস করার পর বাংলাদেশ শুরুতে ব্যাট হাতে নেয়, আর তখনকার তারকা ব্যাটসম্যান আমিনুল ইসলাম বুলবুল করেন চমৎকার এক সেঞ্চুরি। তবে প্রথম ইনিংসে ভালো খেললেও দ্বিতীয় ইনিংসে ভালো করতে না পারায় প্রথম টেস্ট ম্যাচটি ৯ উইকেটে হেরে যায় বাংলাদেশ দল।

    এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ ৯৯টি টেস্ট খেলে জয় পেয়েছে ৮টিতে, ১৫টি টেস্ট ম্যাচ ড্র করেছে এবং ৭৬টি ম্যাচ হেরেছে।

    সৌরভ গাঙ্গুলির সঙ্গে হাত মেলাচ্ছেন নাইমুর রহমান দুর্জয়

    অভিষেক টেস্টে সৌরভ গাঙ্গুলির সঙ্গে হাত মেলাচ্ছেন নাইমুর রহমান দুর্জয়

    টেস্টে বাংলাদেশের প্রথম জয়

    অভিষেকের বেশ অনেকদিন পর ২০০৫ সালের ১০ই জানুয়ারি চট্টগ্রামের এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে ২২৬ রানে জিম্বাবুয়েকে পরাজিত করে বাংলাদেশ প্রথম টেস্ট জয়ের স্বাদ পেয়েছিল।

    বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট জয়ী দলের অধিনায়ক ছিলেন হাবিবুল বাশার সুমন। ওই ম্যাচের দুই ইনিংসেই বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ রান করেন সুমন। প্রথম ইনিংসে ৯৪ এবং দ্বিতীয় ইনিংসে ৫৫ রান। তবে জিম্বাবুয়ের দ্বিতীয় ইনিংসে ৪৫ রানের বিনিময়ে ৬ উইকেট নিয়ে ধস নামিয়ে নিজের ডেব্যু ম্যাচেই ম্যান অফ দ্য ম্যাচ হয়েছিলেন এনামুল হক জুনিয়র।

    দ্বিতীয় টেস্টটি ড্র হয়েছিল, আর তাই ১-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতেছিল বাংলাদেশ। ওই টেস্ট দলে যারা ছিলেন তাদের মধ্যে একমাত্র মাশরাফি বিন মুর্তজাই এখনও নিয়মিত জাতীয় দলে খেলছেন। যদিও টেস্ট ক্রিকেট থেকে এরই মধ্যে অবসরে গেছেন মাশরাফি।

    বাংলাদেশের টেস্ট ম্যাচের একটি দৃশ্য (ফাইল ছবি)

    বাংলাদেশের প্রথম যেদিন টেস্ট জয় করে ওই ম্যাচে দুই ইনিংসে ৫ উইকেট নেন মাশরাফি বিন মুর্তজা (ফাইল ছবি)

    অন্যান্য রেকর্ড:

    গলে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্টে বাংলাদেশ দল তাদের দলীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রহ করেছিল। ২০১৩ সালে মুশফিক ও আশরাফুলের ব্যাটিং দৃঢ়তায় ৬৩৮ রান করে রেকর্ড গড়েছিল বাংলাদেশ।

    টেস্টে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশি রানের মালিক তামিম ইকবাল। ৪৮টি ম্যাচ খেলে তাঁর সংগ্রহ ৩৫৪৬ রান। এর মধ্যে আছে ৮টি সেঞ্চুরি এবং ২১টি হাফ সেঞ্চুরি। তামিমের গড় রান ৩৮.৯৬। আর ৩৩৪৮ রান নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছেন সাকিব আল হাসান।

    এনামুল হক জুনিয়র প্রথম বাংলাদেশি বোলার যিনি একটি ম্যাচে দশ উইকেট নিয়েছেন। তবে টেস্ট ক্রিকেটে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারের কৃতিত্ব সাকিবের। তিনি ৪৮ টি ম্যাচ খেলে ১৭০ টি উইকেট শিকার করেছেন। সোহাগ গাজীও তার ডেব্যু টেস্টে রেকর্ড করেন। ২০১৩ সালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে অভিষেক টেস্টে সেঞ্চুরি আর হ্যাটট্রিক সহ ৬টি উইকেট শিকার করেন সোহাগ গাজী।

    গত বছর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে ম্যান অব দ‍্য ম্যাচ ও ম্যান অব দ‍্য সিরিজের পুরস্কার জিতেন মেহেদী হাসান মিরাজ

    গত বছর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে ম্যান অব দ‍্য ম্যাচ ও ম্যান অব দ‍্য সিরিজের পুরস্কার জিতেন মেহেদী হাসান মিরাজ

    অলোক কাপালি বাংলাদেশের প্রথম বোলার যিনি টেস্ট ম্যাচে হ্যাটট্রিক করেন। ২০০৩ সালে পেশওয়ারে পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে এই রেকর্ড গড়েন তিনি।

    টেস্ট ক্রিকেটে মাত্র ১৭ বছর বয়সে সেঞ্চুরি করে ইতিহাস গড়েছেন মোহাম্মদ আশরাফুল। ২০০১ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে কলম্বো টেস্টে তিনি এই সেঞ্চুরি করেন।

    সম্প্রতি ইংল্যান্ড সিরিজে দারুণ রেকর্ড গড়েন বাংলাদেশের তরুণ অফস্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ। অভিষেকের পর প্রথম দুই টেস্টের চার ইনিংসে ১৯টি উইকেট শিকার করেন তিনি।

    চলতি বছরের শুরুতে ওয়েলিংটনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ২১৭ রান করে সাকিব আল হাসান। কোনো বাংলাদেশি ক্রিকেটারের এটাই সর্বোচ্চ রান। এর আগে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মুশফিকুর রহিম করেছিলেন ২০০ রান।

    সূত্র : বিবিসি বাংলা

    ফাস্ট বিডিনিউজ ২৪/এ আই

    Close