আত্মগোপনে ঝিনাইদহ শৈলকুপা পাইলট বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা

আত্নগোপনে  ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার শৈলকুপা পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা দিলারা ইয়াসমিন জোয়ার্দার।শিক্ষিকার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেছেন সাংবাদিকরা ,গ্রেফতার এড়াতে পালিয়ে গেলেন তিনি।

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, বিদ্যালয়ের তহবিল থেকে ভুয়া বিল-ভাউচার বানিয়ে ১০ লক্ষাধিক টাকা আত্মসাৎ করেছেন প্রধান শিক্ষিকা দিলারা ইয়াসমিন। বিদ্যালয়ে যোগদানের পর থেকে নানা অনিয়ম, দুর্নীতি ও শিক্ষকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করছেন। এরই মধ্যে ফেসবুকে শিক্ষক ও সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে কুরুচিপূর্ণ ছবি পোস্ট করে মন্তব্য করেন।

এসব বিষয় বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচার-প্রকাশিত হয়। তার এসব অনিয়মের তদন্ত করছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়সহ বিভিন্ন দফতর।

এরই মধ্যে শিক্ষিকা দিলারা ইয়াসমিন জোয়ার্দারের বিরুদ্ধে কয়েকটি তদন্ত প্রতিবেদন দিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। কিন্তু ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে একের পর এক অনিয়ম করেই চলছেন তিনি।

ফলে শিক্ষিকা দিলারা ইয়াসমিনের অনিয়মের বিরুদ্ধে ফুঁসে ওঠেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। একই সঙ্গে তার অপসারণ চেয়ে রাস্তায় নামেন তারা। প্রতিবাদে মানববন্ধন ডাকেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

বুধবারের মানববন্ধনে বিদ্যালয়ের সব শিক্ষক-কর্মচারী এবং প্রায় এক হাজার শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন। মানববন্ধন শেষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে স্মারকলিপি দেন তারা।