কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিকী সম্মেলন উপলক্ষ্যে সাংবাদিক সম্মেলন

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিকী সম্মেলন উপলক্ষে স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেছেন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় সরকারি নলডাঙ্গা ভুষণ হাইস্কুল রোডস্থ আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক এমপি আব্দুল মান্নানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল আজীম আনার এমপি।
তিনি বলেন, আগামী ১৭ নভেম্বর ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপন ও জাঁকজমকপূর্ণ পরিবেশে উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিকী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলন উপলক্ষে ইতিমধ্যে সকল রাজনৈতিক দলসহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনকে দাওয়াত দেওয়া হয়েছে। এ সম্মেলনে প্রধান অতিথির হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান।
তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ একটি প্রাচীন ও বড় রাজনৈতিক দল। সেই দলের সম্মেলন একটু সাজসজ্জাভাবে হওয়া উচিত। সম্মেলনে কোন ঘাটতি রাখা হয়নি। সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সম্মেলনের একটি অংশ। তিনি বলেন, আমরা কাজ করছি। কাজ করতে গেলে ভুলক্রটি হয়। আমাদের ভুল ত্রæটি গুলি আপনারা তুলে ধরবেন।
তিনি আরো বলেন, সম্মেলনকে সাফল্যমন্ডিত করতে ১০ টি উপ-কমিটি গঠন করা হয়েছে। এছাড়া সম্মেলনে ৩৮৭ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করে কমিটি গঠন করবেন।
মতবিনিময় সভায় সাংবাদকিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, দৈনিক নবচিত্র পত্রিকার প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক আলহাজ্ব শহিদুল ইসলাম, কালীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি এম শাহাজাহান আলী সাজু, প্রেসক্লাব কালীগঞ্জের সভাপতি জামির হোসেন, কালীগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও কালেরকণ্ঠ প্রতিনিধি নয়ন খন্দকার, সাংবাদিক সোহেল আহম্মেদ, সাবজাল হোসেন, তারেক মাহমুদ প্রমুখ।
এছাড়া সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়ের সময় উপস্থিত ছিলেন, সাবেক উপজেলা আওয়ামী লীগর সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম জাহাঙ্গীর সিদ্দিক ঠান্ডু, সাবেক সেক্রেটারি ইসরাইল হোসেন, কেন্দ্রীয় বাস্তুহারালীগ সভাপতি তোফাজ্জেল হোসেন বাবু, সাবেক ছাত্র নেতা ও সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান মতি প্রমুখ।
মতবিনিময় সভাটি সার্বিকভাবে পরিচালনা করেন, কালীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আনিসুর রহমান মিঠু মালিথা।