আপনি কি জানেন, আপনার শরীর থেকে বর্জ্য পদার্থ অপসারণের জন্য আপনার কিডনি দায়ী? কিডনি সুস্থ না থাকলে আপনার কিডনির যে স্বাভাবিক কাজগুলি করা উচিত তা করতে বাধা দেয়। এবং পরবর্তীতে শরীরে বিভিন্ন রোগ বাসা বাঁধে। তাই কিডনি সুস্থ এবং পরিষ্কার রাখতে খাদ্যাভাসের প্রতি সচেতন হওয়া জরুরি। তাই কিডনির যত্ন নিতে এবং সেগুলি পরিষ্কার রাখতে আপনি এই ৭টি খাবার আপনার তালিকায় রাখতে পারেন।

১. সবুজ শাকসবজি


সবুজ শাকসবজিছোটবেলায় আপনার মা হয়তো আপনাকে সবুজ শাক-সবজি খেতে জোর করতেন, তিনি সম্ভবত জানতেন আপনার কিডনির জন্য তা কতটা উপকারী।
সবুজ শাক এ প্রচুর পরিমানে ভিটামিন সি এবং ভিটামিন কে থাকে । এগুলো আপনার রক্তচাপ হ্রাস করে, আপনার রক্তের শর্করাগুলি সামঞ্জস্য করে এবং কীডনি স্ট্রেস কমাতে পারে।

২. আপেল

আপেলইংরেজিতে একটি প্রবাদ আছে- ‘An apple a day keeps the doctor away’ অর্থাৎ প্রতিদিন একটি করে আপেল খেলে আপনার আর ডাক্তারের দরকার হবে না, কিন্তু কে মনে করে যে এটি সত্য হতে পারে? আপেল শরীরের বিষাক্ত জীবাণু শোষণ করে এবং এটি ফাইবার দ্বারা পরিপূর্ণ। এটি আপনার কিডনিতে কঠোর পরিশ্রম করে কাজ করে।
আপেল শরীরের প্রদাহ কমাতে এবং আপনার হজম শক্তি বাড়াতে খুব চমৎকার ভাবে কাজ করে।

হলুদ৩. হলুদ

আপনার শরীরের প্রদাহ বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কিডনি রোগের কারণেই হতে পারে। হলুদ আপনার কিডনি পরিষ্কার করার জন্য কাজ করে এবং বিভিন্ন রোগের সাত্থে লড়াই করে। হলুদ এ এন্টি ইনফ্লামেসন এর বৈশিষ্ট্য রয়েছে। এটি কিডনি রোগ এবং পাথর প্রতিরোধে উপকারী। আপনার তরকারিতে এটি পরিমাণ মত যোগ করুন।

রসুন

৪. রসুন

রসুনে আছে পঁচনরোধী এবং জমাটরোধী উপাদান যা কার্যকরভাবে কিডনি রোগ প্রতিরোধ করে। রসুন কিডনিকে ক্ষতিকর ধাতব পদার্থের সম্ভাব্য ক্ষতি থেকে রক্ষা করে। তাই আপনি সর্বদা আপনার খাদ্যের মধ্যে যথেষ্ট রসুন রাখুন।

অলিভ অয়েল৫.অলিভ অয়েল

অলিভ অয়েল আপনার কিডনির জন্য খুবই উপকারী। অলিভ অয়েল আপনার কোলেস্টেরলকে কমিয়ে দিতে পারে, কিডনি পাথরের কারণে ব্যথা উপশম করতে পারে, এবং প্রদাহও কমাতে কাজ করে। এটি সহজেই পাওয়া যায় এবং সাশ্রয়ী মূল্যের। এতে রয়েছে অলিক এসিড, অ্যান্টি ইনফ্লামেটরি ফ্যাটি এসিড যা কিডনি সুস্থ রাখার পাশাপাশি ক্যান্সার প্রতিরোধ করে থাকে। তাই প্রতিদিনের রান্নায় অন্যান্য তেলের চেয়ে অলিভ অয়েল ব্যবহার করতে পারেন।

লেবুর রস

৬. লেবুর রস

লেবুর রস কিডনিতে পাথর গঠন করতে বাধা দেয়, লেবুর রস আপনার সিট্রেটের মাত্রা বাড়ায়, যা কিডনি পাথর গঠন করতে দেয় না।
প্রতিদিন চারটি করে লেবু গরম বা ঠান্ডা পানিতে ভিজিয়ে নিন এবং পান করুন! কিডনির পাথর বিদায় নেবে এবং এটি কিডনি পরিষ্কার করতে সাহায্য করে।

 

আদা৭. আদা

আদা আপনার কিডনি পরিষ্কার করতে সাহায্য করবে। রান্নায় মসলা হিসেবে আদা ব্যবহার করুন। এছাড়াও আদার রস খেতে পারেন। আদা বমি ভাব, ব্যথা, ক্ষুধা হ্রাস, এমনকি প্রদাহ কমাতে সাহায্য করতে পারেন।